গফরগাঁওয়ে গৃহবধূকে তুলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ

গফরগাঁও উপজেলার চরআলগী ইউনিয়নের নয়াপাড়া গ্রামের এক গৃহবধূকে জোর করে তুলে নিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। ধর্ষকের পরিবার ওই গৃহবধূকে মারধর ও মামলা না করতে হুমকি দেয়। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার রাতে ওই গ্রামের শফিক মিয়ার ছেলে ধর্ষক মো. ইব্রাহিমকে আসামি করে মামলা দায়ের করেছেন গৃহবধূর নানা।ধর্ষককে গ্রেফতারের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে পুলিশ।
মামলা সূত্রে জানা গেছে, নির্যাতিতা ওই গৃহবধূ শৈশবে বাবা-মা হারিয়ে নয়াপাড়া গ্রামে নানার বাড়িতে বসবাস করতেন।স্থানীয় স্কুলে যাওয়া আসার পথে প্রতিবেশি শফিক মিয়ার বখাটে ছেলে ইব্রাহিম কুপ্রস্তাব দিয়ে উত্ত্যক্ত করত। পরে নির্যাতিতার নানা বাধ্য হয়েই পড়াশোনা শেষ হওয়ার আগেই তার নাতনিকে পৌরশহরের ষোলহাসিয়া এলাকায় বিয়ে দিয়ে দেন। বিয়ের পরও বখাটে ইব্রাহিম গৃহবধূর স্বামীর বাড়ির আশপাশে গিয়ে তাকে উত্ত্যক্ত করত। এ নিয়ে ওই গৃহবধূর সংসারেও অশান্তি তৈরি হয়।নানার বাড়িতে বেড়াতে এসে গত বুধবার দিবাগত রাতে প্রকৃতির ডাকে ঘরের বাইরে বের হতেই বখাটে ইব্রাহিম ও তার সহযোগিরা ওই গৃহবধূকে অপহরণ করে ইব্রাহিমের বাড়িতে নিয়ে জোর পূর্বক ধর্ষণ করে। বিষয়টি জানাজানি হলে বখাটে ইব্রাহিমের পরিবারের লোকজন ধর্ষিতাকে মারধর করে ও তার নানাকে খবর দিয়ে নিয়ে থানায় মামলা না করার হুমকি দেয়।
গফরগাঁও থানার ওসি ফারুক আহম্মেদ বলেন, এ ঘটনায় মামলা হয়েছে। অভিযুক্ত আসামিকে গ্রেফতারে কাজ করছে পুলিশ।

খবর বিশ্ব: আনোয়ারুল কবির মামুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.