গফরগাঁওয়ে কৃষি কাজে নিজেকে স্বাবলম্বীর স্বপ্ন দেখছেন কৃষক আব্দুল্লাহ

ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে করোনাকালে বেসরকারী চাকুরী হারিয়ে ঘুরে দাঁড়ানোর প্রত্যয় নিয়ে নিরলস প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে আব্দুল হাই। পৈত্রিক সম্পত্তি ও জমি কন্টাক নিয়ে সবজি আবাদ করতে শুরু করেন। খরচ বাদ দিয়ে দ্বিগুন লাভের আশা করছেন তিনি।

জানা যায়, দুই বছর আগের সাভার একটি বেসরকারী কোম্পানিতে চাকরী করতেন। দেশে করোনাকালে চাকুরীটা চলে যায়। স্ত্রী সন্তান নিয়ে গ্রামের বাড়ীতে চলে আসে। বাড়ীতে অবস্থান করার পর অর্থ কষ্টে জীবন যাপন করতে আর কিছুই ভালো লাগছিল না। অবশেষে বাড়ীর গরু, ছাগল বিক্রি করে নিজের অভাব দুর করতে নিজের এবং এলাকার কিছু জমি কন্টাক নেন। প্রায় ১ একর ৫০ শতাংশ জমি নিয়ে সবজি আবাদ করতে শুরু করলেন উপজেলার চরআলগী ইউনিয়নের বালুয়াকান্দা গ্রামের আব্দুল হাই(আব্দুল্লাহ) এখন পুরুদমে কৃষক।জীবন সংগ্রামে টিকে থাকতে পৈত্রিক পেশায় ফিরে এসেছেন। ব্রহ্মপুত্র নদের পূর্ব পাশের এলাকায় আগাম শীতের সবজি যেমন বেগুন, শিম, শীত লাউ, টমেটো, শসা, বাদাম, বরবটি ও চিচিঙ্গা চাষ শুরু করেন। সবজির প্রতিটি ডগায় ফুলে ভরে গেছে। বছর যেতে না যেতেই জমিতে সবজির ভালো ফলন আসতে শুরু করেছে। স্থানীয় বাজারে সবজি বিক্রি করছেন প্রতিদিন তিনি। এখন পর্যন্ত প্রায় ১ লক্ষ টাকার সবজিও বিক্রি করেছেন। কৃষক আব্দুল্লাহ এই সবজি আবাদে উৎসাহিত হয়ে গ্রামের অন্য কৃষকরাও সবজি আবাদে ঝুকে পড়েছে।

কৃষক আব্দুল্লাহ জানায়, ২৮/৩০ দিনের মধ্যেই সবজি তুলে বাজারে বিক্রি শুরু করে দিয়েছি। প্রায় ১ লক্ষ টাকার সবজি বিক্রি করে দিয়েছি। এ মৌসুমে জমি কন্টাকসহ প্রায় ১লক্ষ ৮০ হাজার টাকা খরচ হয়েছে। আশা করছি প্রায় ৪ লক্ষাধিক টাকা উপার্জন হবে।

দায়িত্বরত উপ সহকারী কৃষি কর্মকর্তা মফিজুল ইসলাম তুহিন বলেন, কৃষক আব্দু্ল্লাহ ভাইয়ের সবজি ক্ষতি যাতে না হয় সেই জন্য বাহক পোকা, মাকড়, সাদা মাছি, শিম বেগুন বরবটি ছিদ্রকারী পোকা যাতে আক্রমন করতে না পারে সেই জন্য আলোক ফাঁদ পেতে উৎসাহিত করা হচ্ছে।

উপজেলার কৃষি অফিসার আনোয়ার হোসেন বলেন, সরকার কতৃক উন্নতমানের বীজ বপন এবং নিয়মিত পরিচর্যা ও বালাই নাশক স্প্রে করলে সবজি ফলন ভালো হওয়া সম্ভব।

গফরগাঁও উপজেলা নিবার্হী অফিসার তাজুল ইসলাম বলেন, যথা সময়ে বা আগাম সবজি আবাদ করে বাজারে বিক্রি করে গ্রামীন অর্থনীতি চাঙ্গা করতে ভূমিকা রাখবে।

খবর বিশ্ব/আনোয়ারুল কবির মামুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *